ঢাকা   ০১ ডিসেম্বর ২০২১ | ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

হালুয়াঘাটে বিএনপিনেতা আলী আজগরের জানাযায় মুসুল্লীর ঢল

Logo Missing
প্রকাশিত: 07:10:16 pm, 2021-04-03 |  দেখা হয়েছে: 30 বার।

আনছারুল হক রাসেল: হালুয়াঘাট উপজেলা বিএনপির নেতা আলহাজ্ব আলী আজগর শুক্রবার সন্ধায় মৃত্যুবরন করেন। পরদিন শনিবার দুপুরে হালুয়াঘাট সরকারী আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে তাহার জানাযা নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। জানাযায় দল মত নির্বিশেষে সকল শ্রেণি পেশার মানুষের ঢল নামে। শম্ভুগঞ্জ কাসিমুল উলুম গোরস্থান জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে ২য় জানাযা শেষে পিতা প্রাক্তন সংসদ সদস্য আব্দুল জলিল মিয়ার কবরের পার্শ্বে তাকে সমাহিত করা হয়। মৃত্যুকালে তাহার বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর। স্ত্রী, সন্তান ভাই বোন সহ রেখেগেছেন অসংখ্য আত্মীয়স্বজন ও গুণগ্রাহী।

তাহার সম্মানে হালুয়াঘাট ব্যবসায়ী উন্নয়ন সমিতির ঘোষণায় হালুয়াঘাট বাজার ব্যবসায়ীবৃন্দ অর্ধ দিবস ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখে। শেষ শ্রদ্ধা জানাতে আসে দূর দূরান্ত থেকে নেতাকর্মী ও মুসুল্লীরা। লাইন ধরে ছিলেন হাজার হাজার মানুষ এক পলক দেখার জন্য।

তার মৃত্যুতে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর গভীর শোক প্রকাশ করেন। তিনি তার শোকবার্তায় বলেন আলী আজগর এর মৃত্যুতে তার পরিবার পরিজনের মতো আমিও গভীরভাবে সমব্যাথী। মরহুম আলী আজগর একজন দক্ষ সংগঠনক ছিলেন। জনকল্যাণের মহান ব্রত নিয়ে রাজনীত করতেন বলেই তিনি ছিলেন একজন জনপ্রিয় নেতা। তিনি তার শোকাহত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ময়মনসিংহ বিভাগ সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স তার শোকবার্তায় আলহাজ্ব আলী আজগরের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। তিনি তার শোকবার্তায় মরহুমের রুহের মাগফেরাত ও তার পরিবারবর্গের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

সমবেদনা জ্ঞাপন করেন হালুয়াঘাট ধোবাউড়া থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য জুয়েল আরেং। নেতৃবৃন্দ সহ ফুলেল শ্রদ্ধাঞ্জলি সহ ছুটে আসেন আলহাজ্ব আলী আজগরের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করার জন্য। তিনি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন তার পরিবার বর্গের প্রতি।

এছাড়াও তার মুত্যর খবর পেয়ে ফুলপুর, তারাকান্দা, নালিতাবাড়ী, ধোবাউড়া থেকে তার বন্ধু বান্ধব সহ অসংখ্য নেতাকর্মী ও গুণগ্রাহী ছুটে আসেন।

তিনি দুই দুইবার উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে সফলতার সাথে দায়িত্ব পালন করেন। হালুয়াঘাট উপজেলাকে নিয়ে স্বপ্ন দেখতেন। তিনি সামাজিক ও ধর্মীয় ব্যক্তিত্বও ছিলেন। বড়বন মাদ্রাসার, হালুয়াঘাট কেন্দ্রীয় ঈদগাহ, ধান মহাল জামে মসজিদ সহ অসংখ্য ধর্মীয় ও সামাজিক কাজে নিয়োজিত ছিলেন। তাহার প্রতিষ্ঠিত অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মার্কেট, মসজিদ, মাদ্রাসা রয়েছে।

 

 

Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!