ঢাকা   রবিবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৭ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

শেরপুরের সঙ্গীত শিল্পী রাজু আহমেদের গান নিয়ে ব্যস্ততার গল্প

Logo Missing
প্রকাশিত: 01:21:19 pm, 2019-01-08 |  দেখা হয়েছে: 1128 বার।

রাকিবুল ইসলাম রাকিব : গ্রাম্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের বিভিন্ন সংগীত প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে গানের জগতে আসেন শেরপুরের সঙ্গীত শিল্পী রাজু আহমেদ ।

এ মুহূর্তে আধুনিক গানের অঙ্গনে উজ্জল অবস্থান তার। প্রতিদিনই গান ভক্ত প্রেমীদের মন জয় করতে মানসম্মত নতুন কোনো গান বাজারে আনতে অনুশীলনে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন এই তরুণ কন্ঠশিল্পী।

শেরপুর জেলার, শেরপুর সদর টাউনের পূর্বশেরী এলাকার ছেলে রাজু। রাজুর পিতা মোঃ হামিদুর রহমান মাতা মিসেস রাশিদা রহমান। বড় বোন উম্মে হাবিবা হ্যাপী ও ছোট ভাই মোহাম্মদ আর রহমান, তিন ভাই বোনের মাঝে রাজু মেঝো।

মা বাবা ভাই বোন ও বন্ধু মহলের অনুপ্রেরণায় শিল্পী রাজুর সঙ্গীত জগতে পথচলা শুরু স্কুল জীবন থেকেই। বর্তমানে রাজু গানের মধ্য দিয়ে ব্যস্ততম সময় পার করছেন।

তিনি ইতিমধ্যে তার বিভিন্ন গান দিয়ে দর্শক নন্দিত হয়েছেন। যেমন রোহিঙ্গা, সজনী গো,  লাল শাড়ী, কত ফাগুন, ভালোবেসে সুখী হবো, আষাঢ়ের জল, এতো সুন্দর, লাল বেনারসী, ও জাদু সোনা, তোমাকে হারিয়ে কত রাত কেঁদেছি, ও প্রিয়জন ও সর্বশেষ মা শিরোনামের গান। শিল্পীর সাথে কথা বলে, তার ব্যক্তিগত জীবন ও গান নিয়ে বিভিন্ন পরিকল্পনার কথা জানতে পারলাম। 

তিনি ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি থেকে বিএসসি টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং পাশ করে বর্তমানে একটি মাল্টিন্যাশনাল গ্রুপ অব কোম্পানী ব্রিটানিয়া লেবেল বিডি লিঃ এ আইটি ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্ট এ সহকারি ব্যবস্থাপক হিসেবে কর্মরত আছেন।

গান নিয়ে রাজু বলেন, “ গান হচ্ছে মানুষের মনের খোরাক। আর  সুস্থ্য ধারার বিনোদন নিয়ে, ভাল ভাল মানসম্পন্ন গান উপহার দিয়ে মানুষের সেই মনের খোরাক পূরণ করতে চাই এটাই আমার মূল লক্ষ্য। আর আমি আমার মা’কে সব থেকে বেশি ভালোবাসি। মা হচ্ছে আমার গান ও অন্যান্য সবকিছুর জন্য অনুপ্রেরণা। আমি বিশ্বাস করি এই পৃথিবীর সব ছেলে-মেয়ের কাছেই তার মা সব থেকে দামি ও মহা মূল্যবান সম্পদ। তাই আমি সকল মা’দের জন্য একটি গান করেছি। গানটি সিডি চয়েস মিউজিক থেকে ইতিমধ্যে বের হয়ে বেশ সাড়া ফেলেছে। বিভিন্ন কনসার্ট  গেলে তারা আমাকে এই গানটি করার জন্য রিকোয়েস্ট করে।  আমি সবার কাছেই দোয়াপ্রার্থী।

“ শিল্পী রাজু ইতিমধ্যে কয়েকটি এ্যালবাম ও বিভিন্ন শর্ট ফিল্ম নিয়ে কাজ করছেন এছাড়া বিভিন্ন আর্ট ফিল্মে প্লেব্যাক শিল্পী হিসেবে মনোনীত হয়েছেন। গানের গুরু কে জানতে চাইলে তিনি বলেন বিশিষ্ট সঙ্গীত শিল্পী এইচ সাজু, বাসুদেব, মজিবর ইসলাম, রিয়াদ, রানা  প্রমুখ তার গানের গুরু। তাদের হাত ধরেই এতদূর আসা। তিনি ভবিষ্যতে গানের জগতে নিজেকে বিলিয়ে দিতে সদা প্রস্তুত। সকলের কাছে তিনি দোয়া প্রার্থী।