ঢাকা   রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

মধুপুরে দুর্নীতির সংবাদ প্রকাশের জেরে সাংবাদিক কে গাছে বেধে নির্যাতন

Logo Missing
প্রকাশিত: 05:52:04 pm, 2021-08-22 |  দেখা হয়েছে: 4 বার।

মধুপুর (টাংগাইল) :

টাংগাইলের মধুপুর উপজেলার অরণখোলা ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান আ: রহিম
আহমেদের অনিয়মের সংবাদ প্রকাশের জেরধরে মধুপুরে জাতীয় দৈনিক
পত্র্রিকার সাংবাদিক উপজাতি  প্রিন্স এডওয়ার্ডকে আটকে রেখে গাছের সাথে
বেধে মারপিট করার খবর পাওয়া গেছে।
 
প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা জানান, প্রিন্স এডওয়ার্ড সংবাদ সংগ্রহের
জন্য গতকাল বিলের মধ্য পানিতে পড়ে ২শিশু মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে বিল এলাকায়
গেলে তাকে পূর্ব শত্রার জের ধকে আ: রহিম চেয়ারম্যান এর নিদেশে
স্থানীয় ইউপি সদস্য ও তার বাহিনী মিলে সাংবাদিক আটক রেখে অন্যায়ভাবে
গাছে বেধে বেদম প্রহার করে এবং সেই ছবি তুলে সোসাল মিডিয়া ফেসবুকে ভাইরাল
করে। এতেও ক্ষ্যান্ত না হয়ে থানা পুলিশ ঢেকে এনে আহত গণমাধ্যমকর্মীকে সু
চিকিৎসা না দিয়ে থানায় নিয়ে রাতে ইউপি চেয়ারম্যান বাদী হয়ে একটি মিথ্যা
মামলা দিয়ে সাংবাদিক প্রিন্স এডওয়ার্ডকে গ্রেফতার দেখিয়ে জেল হাজতে
প্রেরণ করেন।
 
মামলার বাদী আ: রহিম চেয়ারন বলেন গত কাল বেলা ৫ ঘটিকার সময় অরণখোলা
ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান আ: রহিম আহমেদের এর বাড়ীতে প্রিন্স
এডওয়ার্ড, তারেক,ফজর আলী,জাকির হোসেন বাচ্ছু,চান মিয়াসহ আরও কয়েক জন
মিলে চেয়ারম্যান এর বাড়ীতে হামলা চালায়। এমন অবস্থায় চেয়ারম্যান এর
সোকেজের ডয়ার এর মধ্য কার ২৫হাজার টাকার মামালা মাল ক্ষতি করাসহ সোকেজের
ডয়ার ভেংঙ্গে ২০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়।  আর এ সকল উল্লেখ করে
অরণখোলা ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান আ: রহিম আহমেদের বাদী হয়ে মধুপুর
থানায় গত ১৯/০৮/২১ ইং তারিখে ৫ জন কে আসামী করে একটি মামলা করেন। মামলা
নং ১৯।
 
ঘটনার বিষয় নিয়ে এলাকার মানুষ জানান, সাংবাদিক প্রিন্স এডওয়ার্ড
দীর্ঘদিন যাবত মধুপুর উপজেলার অরণখোলা ইউনিয়নের বিভিন্ন অনিয়ম নিয়ে
বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ করে আসছে। আর তার ফল সুরুপ ইউপি
চেয়ারম্যান তার বিরুদ্ধে উঠে পড়ে লেগেছে। তার জের হিসাবে এই
গণমাধ্যমকর্মীকে মিথ্যা মামলা দিয়ে আজ জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।
মধুপুর থানা অফিসার  তারেক কামাল জানান , আমি খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক পুলিশ
পাঠিয়েছি। তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে এসেছি। পড়ে ইউপি চেয়ারম্যান এর
লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে মামলা রজু করে তাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।
এ ঘটনায়  স্থানীয় সাংবাদিক, রাজনৈতিক ও বিভিন্ন পেশাজীবি ব্যক্তিবর্গ
আ: রহিম চেয়ারম্যান এর বিরুদ্ধে তীব্র নিন্দা জানান। সচেতন মহলের দাবী
মামলাটি সঠিত তদন্ত করলে আসল ঘটনা বেরিয়ে আসবে। প্রশাসনের নিকট
এলাকাবাসীর দাবি মামলাটি নিরপেক্ষ ভাবে তদন্ত করা হোক।