ঢাকা   ২১ অক্টোবর ২০২০ | ৬ কার্তিক ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

নালিতাবাড়ীতে দাফনের ৬৪ দিন পর কবর থেকে লাশ উত্তোলন

Logo Missing
প্রকাশিত: 09:48:47 pm, 2020-09-21 |  দেখা হয়েছে: 63 বার।

নালিতাবাড়ী: শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে দাফনের ৬৪ দিন পর নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মিজানুর রহমানের উপস্থিতিতে ময়না তদন্তের জন্য লাশ তুলা হয়েছে।
মামলা ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায় গত ১৬ জুলাই রাত ৯ টার দিকে নালিতাবাড়ী উপজেলার বড়ডুবি এলাকার আবুল হোসেনের ছেলে উসমানি আলি (২৫) কে নিজ বাড়ীর ঘোয়াল ঘরের সামনে অচেতন অবস্থায় পাওয় যায় । পরে শেরপুর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিতসক তাকে মৃত ঘোষনা করে। পরে তড়িঘরি করে নবি হোসেনের লাশ কবরস্থানে দাফন করা হয়।
প্রায় এক মাস পর মৃতের বড় ভাই আছিম উদ্দিন শেরপুর কোর্টে ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ এর সভাপতি সাইফুল ইসলামসহ চার জনকে আসামী করে মামলা করেন। মামলায় তদন্তের সার্থে ২১ সেপ্টেম্বর সকালে লাশ তুলে শেরপুরে নেওয়া হায়।
মৃতের বাবা আবুল হোসেন বলেন, আমার নির্দোষ ছেলেকে পরিকল্পিত ভাবে মারা হয়েছে। আমি এর বিচার চাই।
রাজনগর ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক আহামেদ বকুল বলেন, উসমান মারা যাওয়ার দুইদিন পর তার বাড়িতে গেলে মৃতের বাবা বা অন্য কেউ হত্যার কথা বলে নাই। কিছুদিন পর কোর্টে মামলা হয়েছে বলে জানতে পেরেছি।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা নালিতাবাড়ী থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ জুবায়ের হোসেন বলেন, মামলাটি তদন্তের স্বার্থে লাশের ময়না তদন্তের জন্য বিজ্ঞ আদালতের আদেশে মৃত উসমান আলীর লাশ কবর থেকে উত্তোলন করা হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্টে বলা যাবে কি ভাবে মৃত্যু হয়েছিল।