ঢাকা   সোমবার ২৫ মে ২০২০ | ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

ওসি ও ইউপি চেয়ারম্যানের হস্তক্ষেপে অবরুদ্ধ থেকে মুক্তি পেলেন অসহায় শামীমা

Logo Missing
প্রকাশিত: 09:54:24 am, 2020-05-02 |  দেখা হয়েছে: 14 বার।

নিজেস্ব প্রতিবেদকঃ প্রভাবশালী প্রতিবেশী কর্তৃক অবরুদ্ধ হয়ে গত একমাস যাবত মানবেতর জীবন যাপন করছিলেন অসহায় শামীমা আক্তার। ঘটনাটি ঘটেছে ময়মনসিংহ জেলার হালুয়াঘাট উপজেলাধীন ৯নং ধারা ইউনিয়নের টিকুরিয়া গ্রামে। ভুক্তভোগী শামীমা আক্তার পেশায় একজন শিক্ষিকা। তিনি বাড়ির নিকটবর্তী রুস্তমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা হিসেবে কর্মরত। ভুক্তভোগী শামীমা জানান, স্থানীয় কয়েকজন প্রভাবশালীর প্ররোচনায় প্রতিবেশী সারোয়ার হোসেন, হীরা, হারুন, জোবায়ের, ইয়ামিন গং বাশঁ ও কাঠের বেড়া দিয়ে আমাদের বাড়ি থেকে বের হওয়ার একমাত্র রাস্তাটি বন্ধ করে দিয়েছিলো। তিনি আরও জানান, আমার বাড়িতে দৈনিক মজুরি ভিত্তিতে কাজে আসা একজন শ্রমিককে মারধোর করে। আর তাতে বাধা দেওয়ায় ঐ শ্রমিকের চাচিকে মেরে রক্তাক্ত জখম করে। বর্তমানে ঐ নারী হালুয়াঘাট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। যায় ফলে আমরা বেশ কয়েকটি পরিবার বাড়ি থেকে বের হতে পারছিলাম না। পারছিলাম না খাদ্য সহ নিত্য প্রয়োজনীয় অন্যান্য জিনিস ক্রয় করতে। তাছাড়া প্রতিবেশীরা আমাদেরকে প্রতি রাতেই বিভিন্নভাবে ভয় ভিতি দেখাতো। এই জায়গা থেকে অন্যত্তরে বাড়ি নিয়ে চলে যেতে বলতো। পরে হালুয়াঘাটের সাংবাদিকদের অবগত করলে সাংবাদিকরা ঘটনাস্থল সরেজমিনে পরিদর্শন করে এ অবরুদ্ধতার সত্যতা পায়। ঘটনাটি পুলিশ প্রশাসনকে অবগত করলে গতকাল বুধবার হালুয়াঘাট থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ আলী মাহমুদ স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান তোফায়েল আলম বিপ্লবকে নিয়ে চলাচলের রাস্তাটির বেড়া অপসারণ করেন। পরবর্তীতে সৃষ্ট সমস্যার সমাধানকল্পে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানকে আহবান জানান। বিবাদীগণের কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তারা বলেন, আমাদেরকে জমিতে যাওয়ার রাস্তা দেয়না বলেই আমরা তাদের রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছিলাম। জানতে চাইলে হালুয়াঘাট থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ আলী মাহমুদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন।

Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!