ঢাকা   মঙ্গলবার ১১ অগাস্ট ২০২০ | ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

শেরপুরের মধুটিলা ইকোপার্ক ও গজনী পর্যটনকেন্দ্র বন্ধ ঘোষণা

Logo Missing
প্রকাশিত: 03:49:28 pm, 2020-03-21 |  দেখা হয়েছে: 28 বার।

নালিতাবাড়ী, শেরপুর প্রতিনিধি: প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে শেরপুর জেলার গারোপাহাড়ে স্থাপিত পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে ভ্রমণে পর্যটকদের নিরুৎসাহিত করতে নানা উদ্যোগ নিয়েছে জেলা প্রশাসন ও বনবিভাগ। ইতোমধ্যেই ‘মধুটিলা ইকোপার্ক ও গজনী অবকাশ পর্যটন’ কেন্দ্র বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে শেরপুরে বড় ধরনের জনসমাগম এবং পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে প্রবেশ না করতে নির্দেশনা দিয়েছে জেলা প্রশাসন। পাশপাশি জনসমাগম এড়িয়ে চলার পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। এছাড়া পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত সকল কোচিং, ব্যাচ করে প্রাইভেট পড়ানো বন্ধ রাখার ঘোষণা দেয়া হয়েছে।

এছাড়া করোনা ভাইরাসের থাবা থেকে গণসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষে শেরপুর জেলা পুলিশ দেড় লাখ লিফলেট বিরণের উদ্যোগ গ্রহন করেছে।

জেলা হাসপাতাল সুত্রে জানা গেছে, শেরপুর জেলায় এ পর্যন্ত ১৩ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রেখেছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। এদের মধ্যে ইটালির তিনজন, চীনের একজন, সিঙ্গাপুরের একজন, ভারতের পাঁচজন, মালয়েশিয়ার একজন ও সৌদি আরবের দুইজন। তারা সবাই ফেরত প্রবাসী।

গজনী অবকাশ পর্যটন কেন্দ্র বন্ধ ঘোষনার বিষয়টি শেরপুরের জেলা প্রশাসক আনার কলি মাহবুব ও মধুটিলা ইকোপার্ক বন্ধের বিষয়টি বন বিভাগের মধুটিলা রেঞ্জকর্মকর্তা মো. আব্দুল করিম নিশ্চিত করেছেন।

শেরপুর জেলা সিভিল সার্জন ডা. একেএম আনোয়ারুল রউফ বলেন, করোনা পজিটিভ রোগীর সংষ্পর্শে আসার কারণে তাদের মধ্যে যদি সর্দি, কাশি, বুকে ব্যথা, শ্বাসকষ্ট, পাতলা পায়খানাসহ শরীরে কোনও সমস্যা দেখা দেয় তবে টেলিফোনে সংশ্লিষ্ট ডাক্তার বা সিভিল সার্জনকে জানাতে বলা হয়েছে। এছাড়াও যদি করোনার কোন সংক্রামন পাওয়া যায়, তাহলে তা সংগ্রহ করে ঢাকা আইইডিসিআরে পাঠানো হবে।

তিনি আরো জানান, বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় জেলায় বিভিন্ন হাসপাতালে ১৫০টি শয্যা প্রস্তুতিসহ নানা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এরমধ্যে জেলা সদর হাসপাতালে ১০ শয্যা বিশিষ্ট বিশেষ আইসোলেশন ওয়ার্ড, ঝিনাইগাতী উপজেলা হাসপাতালে ২০ শয্যা, শ্রীবরদী হাসপাতালে ২০ শয্যা, নালিতাবাড়ীর রাজনগর মা ও শিশু হাসপাতালে ৫০ শয্যা ও নকলার উরফা হাসপাতালে ৫০ শয্যা রয়েছে। করোনায় আক্রান্ত সন্দেহ হলে নালিতাবাড়ী ও নকলার দুটি প্রতিষ্ঠানে কোয়ারেন্টাইন কক্ষে রাখা হবে।

 

Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!