ঢাকা   সোমবার ০৬ এপ্রিল ২০২০ | ২৩ চৈত্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Logo Missing
প্রকাশিত: 08:32:48 pm, 2020-03-20 |  দেখা হয়েছে: 10 বার।

প্রেসক্লাব কোন লিমিট কোম্পানী নয়। এটি সাংবাদিকদের সংগঠন। এখানে প্রকৃত সাংবাদিকরা সদস্য হবেন এটাই স্বাভাবিক। দৈনিক আমাদের সময় ও অবজারভার প্রতিনিধি এম. সুরুজ্জামান ও দৈনিক কালের কন্ঠ পত্রিকার প্রতিনিধি সাইফুল ইসলাম সানীর প্রেসক্লাবের সদস্য পদে আবেদনের প্রেক্ষিতে গত ১২ সেপ্টেম্বর তাদের সদস্য করে নেওয়া হয়। পরবর্তীতে আরো ৩ জন যথাক্রমে দৈনিক মানব জমিন ও তথ্যধারা প্রতিনিধি মোঃ মাহফুজুর রহমান সোহাগ, দৈনিক নয়াদিগন্ত মোঃ আব্দুল মোমেন ও দৈনিক আলোকিত সকাল প্রতিনিধি রাকিবুল ইসলাম রাকিবের আবেদনের প্রেক্ষিতে সভায় উপস্থিত সদস্যগন এই তিনজন সাংবাদিককে সদস্য করে নেওয়ার পক্ষে বিপক্ষে মতামত দেন। ফলে আলোচনা সভা স্থগিত রেখে প্রায় ৬ মাস পর্যবেক্ষন করে সভাপতি আলহাজ্ব এম. এ. হাকাম হীরা তার বিশেষ ক্ষমতা বলে নতুন ঐ ৩ সাংবাদিককে প্রেসক্লাবের প্রাথমিক সদস্য গ্রহণের পক্ষে মত দিয়ে আবেদনকারীদের গত ১৮ মার্চ সদস্যপদ প্রাপ্তির চিঠি দেওয়া হয়।
এ বিষয়কে কেন্দ্র করে গত ১৯ মার্চ তিন সাংবাদিক কে সদস্য পদ দানের বিরোধিতাকারীরা বর্তমান সভাপতি আলহাজ্ব এম.এ. হাকাম হীরা ও সাধারণ সম্পাদক বিপ্লব দে কেটু’র বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ আনেন। এছাড়া নিজেরাই মনগড়াভাবে বর্তমান কমিটি বিলুপ্ত ঘোষনা করে তথাকথিত আহবায়ক কমিটি গঠন করেছে বলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি স্ট্যাটাস দেন। বিষয়টি প্রেসক্লাবের সভাপতি-সম্পাদকসহ সাংবাদিকদের নজরে আসে। যা সম্পুর্ন অসাংবিধানিক।
প্রেসক্লাবের প্যাড ব্যবহার করে নতুন আহ্বায়ক কমিটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোষ্ট দেওয়ায় জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়েছে। যা কোন ভাবেই কাম্য নয়। সবাইকে বিনয়ের সাথে বলছি কারও মনগড়া সিদ্ধান্তে প্রেসক্লাব কখনও চলেনি, ভবিষ্যতেও চলবে না। সময় হলে আনুষ্ঠানিক ভাবে নির্বাচন হবে। নতুন কমিটি গঠিত হবে।
ধন্যবাদান্তে

বিপ্লব দে কেটু
সাধারণ সম্পাদক
প্রেসক্লাব
নালিতাবাড়ী, শেরপুর।

Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!