ঢাকা   রবিবার ০৫ জুলাই ২০২০ | ২১ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

তুরস্কের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুললেন ট্রাম্প

Logo Missing
প্রকাশিত: 02:01:08 pm, 2019-10-24 |  দেখা হয়েছে: 1 বার।

অনলাইন ডেস্ক::মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ঘোষণা দিয়েছেন, উত্তর সিরিয়ায় অস্ত্রবিরতি ও অভিযান স্থায়ীভাবে বন্ধ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে তুরস্ক। এতে কুর্দিবিরোধী অভিযানের পর তুরস্কের বিরুদ্ধে সাম্প্রতিক আরোপ করা আমদানি নিষেধাজ্ঞা উঠিয়ে নিচ্ছে ওয়াশিংটন।

হোয়াউট হাউসে বুধবার দেয়া এক বিশেষ ভাষণে ট্রাম্প বলেন, আমাদের অসন্তুষ্ট হওয়ার মতো কিছু না ঘটলে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হবে। বৈশ্বিক প্রসঙ্গে এখানে স্থায়িত্ব নিয়ে সংশয় রয়েছে।

চলতি বছরের শুরুতে তুরস্কের সঙ্গে একহাজার কোটি ডলারের বাণিজ্য আলোচনা স্থগিত ঘোষণা করেছিলেন ট্রাম্প। এতে দেশটির কর রাজস্ব ৫০ শতাংশ ধস নামে। এছাড়া তুরস্কের তিন সিনিয়র কর্মকর্তার ওপরও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন ট্রাম্প।

উত্তর সিরিয়া থেকে আকস্মিক মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের ঘটনায় নিজ দেশে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েন ট্রাম্প।

 

এতে আইএসবিরোধী লড়াইয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রধান মিত্র কুর্দিশদের বিপদে ফেলে এসেছেন বলে অভিযোগ করা হয় এই রিপাবলিকান প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে।

উত্তর সিরিয়া থেকে মার্কিন সেনা সরিয়ে নেয়ার পরেই অভিযানে নামে তুর্কি বাহিনী। এই পরিস্থিতিতে নিজ দল রিপাবলিকান ও বিরোধী ডেমোক্র্যাটদের চাপে পড়ে তুরস্কের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে ট্রাম্প প্রশাসন।

গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতায় কুর্দিদের বিরুদ্ধে অভিযানে পাঁচ দিনের অস্ত্রবিরতিতে রাজি হয় তুরস্ক।

এই অস্ত্রবিরতি চলাকালে কুর্দি যোদ্ধারা সিরিয়ার তুরস্ক সীমান্ত থেকে শুরু করে ভেতর দিকে ৩০ কিলোমিটার পর্যন্ত এলাকা ছেড়ে যাবে বলে শর্ত দিয়েছিল আঙ্কারা।

তুরস্কের কুর্দি বিদ্রোহীদের সঙ্গে সিরিয়ার কুর্দিস পিপলস প্রটেকশন ইউনিট (ওয়াইপিজি) গেরিলাদের যোগাযোগ আছে এমন সন্দেহে আঙ্কারা ওয়াইপিজিকে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে দাবি করে আসছে।

সীমান্ত অঞ্চল থেকে এই ওয়াইপিজি গেরিলাদের সরিয়ে দিতেই সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে ৯ অক্টোবর থেকে সামরিক অভিযান শুরু করেছিল তুরস্ক।

এছাড়া সোচিতে রাশিয়া ও তুরস্কের মধ্যে একটি চুক্তি হয়েছে। যাতে সীমান্ত এলাকা থেকে কুর্দিশ পিপল’স প্রটেকশন ইউনিটস যোদ্ধাদের সরিয়ে নিতে দুই দেশই সহায়তা করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

 
 

সুত্র/যুগান্তর

Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!