ঢাকা   সোমবার ২১ অক্টোবর ২০১৯ | ৬ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

শেরপুর পৌরসভার ১৫০ বছর পূর্তিতে গান করলেন শেরপুরের শিল্পী রাজু আহমেদ

Logo Missing
প্রকাশিত: 08:51:19 pm, 2019-08-12 |  দেখা হয়েছে: 23 বার।

রাকিবুল ইসলাম রাকিব : ঐতিহ্যবাহী শেরপুর পৌরসভার ১৫০ বছর পূর্তিতে গান গাইলেন শেরপুরের উদীয়মান তরুন শিল্পী রাজু আহমেদ। গানটিতে শেরপুর পৌরসভার ইতিহাস ঐতিহ্য সুন্দর ভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন গানটির গীতিকার। মনোমুগ্ধকর সংগীত ও সুরে গানটি বেশ কিছুদিন যাবৎ ইউটিউবে প্রকাশ পেয়েছে। গানের ভিডিওতে শেরপুর পৌরসভার ঐতিহ্যবাহী দর্শনীয় স্থান গুলো দেখা যায়। উদীয়মান শিল্পী রাজু এ গান ছাড়াও বেশ কিছু গানে কন্ঠ দিয়ে ইতিমধ্যে বেশ সুনাম কুড়িয়েছেন। তার গাওয়া গানের মধ্যে যেমন রোহিঙ্গা, সজনী গো, লাল শাড়ী, কত ফাগুন, ভালোবেসে সুখী হবো, আষাঢ়ের জল, এতো সুন্দর, লাল বেনারসী, ও জাদু সোনা, তোমাকে হারিয়ে কত রাত কেঁদেছি, ও প্রিয়জন, মাকে নিয়ে গান ছাড়াও ঈদ নিয়ে, ও সর্বশেষ বাংলাদেশী আইডল এর জনপ্রিয় সংগীত শিল্পী দীপা দাস এর সাথে ডুয়েট গান "জাদুরে" রিলিজ হয়েছে। যা দর্শক হৃদয়ের মন ছুয়ে যাওয়ার মত একটি গান। গানটির ইউটিউব লিংক- https://www.youtube.com/watch?v=VNC9nebBfZU&feature=share গ্রাম্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের বিভিন্ন সংগীত প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে গানের জগতে আসেন শেরপুরের সঙ্গীত শিল্পী রাজু আহমেদ । এ মুহূর্তে আধুনিক গানের অঙ্গনে উজ্জল অবস্থান তার। প্রতিদিনই গান ভক্ত প্রেমীদের মন জয় করতে মানসম্মত নতুন কোনো গান বাজারে আনতে অনুশীলনে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন এই তরুণ কন্ঠশিল্পী। শেরপুর জেলার, শেরপুর সদর টাউনের পূর্বশেরী এলাকার ছেলে রাজু। রাজুর পিতা মোঃ হামিদুর রহমান মাতা মিসেস রাশিদা রহমান। বড় বোন উম্মে হাবিবা হ্যাপী ও ছোট ভাই মোহাম্মদ আর রহমান, তিন ভাই বোনের মাঝে রাজু মেঝো। মা বাবা ভাই বোন ও বন্ধু মহলের অনুপ্রেরণায় শিল্পী রাজুর সঙ্গীত জগতে পথচলা শুরু স্কুল জীবন থেকেই। শিল্পীর সাথে কথা বলে, তার ব্যক্তিগত জীবন ও গান নিয়ে বিভিন্ন পরিকল্পনার কথা জানতে পারলাম। “ শিল্পী রাজু ইতিমধ্যে কয়েকটি এ্যালবাম ও বিভিন্ন শর্ট ফিল্ম নিয়ে কাজ করছেন এছাড়া বিভিন্ন আর্ট ফিল্মে প্লেব্যাক শিল্পী হিসেবে মনোনীত হয়েছেন। গানের গুরু কে জানতে চাইলে তিনি বলেন বিশিষ্ট সঙ্গীত শিল্পী এইচ সাজু, বাসুদেব, মজিবর ইসলাম, রিয়াদ, রানা প্রমুখ তার গানের গুরু। তাদের হাত ধরেই এতদূর আসা। তিনি ভবিষ্যতে গানের জগতে নিজেকে বিলিয়ে দিতে সদা প্রস্তুত। সকলের কাছে তিনি দোয়া প্রার্থী।