ঢাকা   শনিবার ২৪ অগাস্ট ২০১৯ | ৯ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

স্কুলজীবন থেকে রাজনীতি করেছি, কখনও পদ নিয়ে চিন্তা করিনি

Logo Missing
প্রকাশিত: 11:35:21 pm, 2019-05-17 |  দেখা হয়েছে: 3 বার।

 

স্টাফ রিপোর্টার : ছাত্র রাজনীতির স্মৃতিচারণ করে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘স্কুলজীবন থেকেই রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলাম। তারপর কলেজে ও ইউনিভার্সিটিতে ছাত্রলীগেরই সদস্য ছিলাম। আর আওয়ামী লীগের (সদস্য) হলাম ৮১ সালে। আমার রাজনীতি ছাত্ররাজনীতি থেকেই শুরু।  তবে কখনও কোনও বড় পোস্টে ছিলাম না, বড় পোস্ট চাইও নি কখনও।
 
শুক্রবার (১৭ মে) বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে গণভবনে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে এসব কথা বলেন তিনি।
 
প্রধানমন্ত্রী বলেন, যখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ি তখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কমিটির একজন সদস্য ছিলাম। কখনও পদ নিয়ে চিন্তা করিনি, পদ আমরা চাইও নি। আমরা পদ সৃষ্টি করে সবাইকে পদে বসানো—এই দায়িত্বটাই পালন করতাম। প্রত্যেকটা কনফারেন্সে হাজির থাকতাম।’
 
‍উক্ত শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ দলটির শীর্ষনেতারা প্রধানমন্ত্রীকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। ফুলেল শুভেচ্ছা জানান আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনের শীর্ষনেতারাও। 
 
১৯৭৫ সালর ১৫ আগষ্টের কথা স্মরণ করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘৭৫-এর পড় এত বড় দায়িত্ব আমাকে নিতে হবে, এটা কখনও আমি ভাবিনি, চাইওনি, এটা চিন্তাও ছিল না। কিন্তু নিতে হয়েছে। চরম প্রতিকূল পরিবেশের ভেতর দিয়ে দলকে সংগঠিত করতে হয়েছে।’ 
 
তবে টানা ৩৮ বছর দলের সভাপতি থাকা বোধহয় একটু বেশি হয়ে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি। তখন উপস্থিত নেতাকর্মীরা সমস্বরে না বলে ওঠে। তারা শেখ হাসিনার উদ্দেশে বলেন, ‘আপনিই সঠিক নেতা, আপনার হাতেই দেশ ও দল নিরাপদ। আপনাকেই এ দায়িত্ব চালিয়ে যেতে হবে।’ 
 
জবাবে তিনি নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বলেন, ‘আমার মনে হয় আপনাদেরও সময় এসেছে, তাছাড়া বয়সও হয়েছে, এ বিষয়গুলো তো দেখতে হবে।’
 
শেখ হাসিনা বলেন, ‘ক্ষমতায় থেকেও মানুষের আস্থা-বিশ্বাস অর্জন করতে পেরেছি এটা বিশাল অর্জন। নেতাকর্মীদের কাছে এইটুকু চাইবো– এই আস্থা-বিশ্বাস যেন আমরা ধরে রাখতে পারি। ব্যক্তিগত জীবনে কী পেলাম, না পেলাম সে চিন্তা করি না। দেশের মানুষের জন্য কতটুকু করতে পারলাম, কতটুকু দিতে পারলাম সেটাই হচ্ছে সবচেয়ে বড় কথা।’
 
প্রসঙ্গত, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা সপরিবারে নিহত হওয়ার পর বেশ কয়েক বছর বিদেশে নির্বাসিত থেকে ১৯৮১ সালের আজকের এই দিনে দেশে ফিরে আসেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা দেশে ফিরে আসেন। দেশে ফিরে আসার আগে বিদেশে থাকা অবস্থায় তিনি আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হন। এরপর থেকে তিনি টানা ৩৮ বছর বাংলাদেশের প্রাচীনতম রাজনৈতিক সংগঠনের আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। 
 
১৯৯৬ সালের আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর এক টার্ম ও ২০০৯ সালে সরকার গঠনের পর থেকে টানা তিনবার মিলিয়ে বাংলাদেশে ইতিহাসে চতুর্থ বার প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করছেন শেখ হাসিনা। 
 
সুত্র/ ভোরের ডাক