ঢাকা   ২৭ মে ২০২০ | ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

শ্রীলঙ্কা বোমা হামলায় নিহত বেড়ে ৩৫৯, গ্রেপ্তার ৬০

Logo Missing
প্রকাশিত: 06:30:25 pm, 2019-04-25 |  দেখা হয়েছে: 3 বার।

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : শ্রীলঙ্কায়  ৩টি গির্জা ও ৪টি হোটেলে বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৫৯ জনে দাঁড়িয়েছে। এ হামলার ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৬০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
 
আজ বুধবার শ্রীলঙ্কা পুলিশের মুখপাত্র রুয়ান গুনাসেকেরা নিহতের সংখ্যা বৃদ্ধির কথা প্রকাশ করলেও বিস্তারিত আর কিছু জানাননি, খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের। 
 
শ্রীলঙ্কার কয়েকটি চার্চ ও হোটেলে একযোগে চালানো বোমা হামলায় নয় আত্মঘাতী অংশ নিয়েছে এবং তাদের একজন নারী ছিল বলে জানিয়েছেন দেশটির একজন মন্ত্রী। 
 
বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে দেশটির প্রতিরক্ষা প্রতিমন্ত্রী রাভন বিজয়বর্ধনে এসব কথা জানান। হামলাকারীদের মধ্যে আট জনকে শনাক্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। শাংরি-লা হোটেলে আত্মঘাতী হামলা স্থানীয় কট্টরপন্থি ইসলামি গোষ্ঠীর নেতা চালিয়েছে বলে জানিয়েছেন বিজয়বর্ধনে। হামলাকারীদের একজন যুক্তরাজ্য ও অস্ট্রেলিয়ায় পড়াশোনা করেছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।
 
তিনি আরও জানান, নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৫৯ জনে দাঁড়িয়েছে এবং এদের মধ্যে ৩৯ জন বিদেশি। ওই বোমা হামলায় জড়িত সন্দেহে এ পর্যন্ত ৬০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। দক্ষিণ এশিয়ার ইতিহাসে শ্রীলঙ্কা সন্ত্রাসী হামলা সবচেয়ে প্রাণঘাতী বলে জানিয়েছে রয়টার্স। 
 
‍এর আগে রোববার ইস্টার পর্বের দিন দেশটির তিনটি গির্জা ও চারটি হোটেলে আত্মঘাতী বোমা হামলা হয়। মঙ্গলবার পর্যন্ত নিহত ৩২১ জন ও আহত প্রায় ৫০০ জন ছিল। মঙ্গলবার এ হামলায় দায় স্বীকার করেছে মধ্যপ্রাচ্যের জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) । 
 
আইএসের বার্তা সংস্থা আমাক সাত জঙ্গির নাম প্রকাশ করে এরাই আত্মঘাতী হামলাগুলো চালিয়েছে বলে জানিয়েছে। গোষ্ঠীটি নিজেদের দাবির পক্ষে কোনো প্রমাণ দেয়নি। তাদের দাবি যদি সত্য হয়ে থাকে তবে ইরাক ও সিরিয়ার বাইরে তাদের চালানো অন্যতম সবচেয়ে ভয়াবহ হামলা হবে এটি। 
 
মঙ্গলবার রাতে শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা ‘২৪ ঘণ্টার মধ্য’ প্রতিরক্ষা বাহিনীগুলোর প্রধানদের পরিবর্তন করার ঘোষণা দিয়েছেন। 
 
তিনি জানিয়েছেন, হামলার আশঙ্কা প্রকাশ করে প্রতিবেদন দেওয়া হলেও সেগুলো তার সঙ্গে শেয়ার করা হয়নি, কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ‘কঠোর পদক্ষেপ’ নেওয়ার অঙ্গীকার করেছেন তিনি। 
 
জাতির উদ্দেশ্যে দেওয়া ভাষণে তিনি বলেছেন, আগামী সপ্তাহগুলোতে পুলিশ ও নিরাপত্তা বাহিনীগুলোকে ঢেলে সাজাবো। আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে প্রতিরক্ষা বাহিনীগুলোর প্রধানদের পরিবর্তন করতে চাই। নিরাপত্তা কর্মকর্তারা বিদেশি একটি রাষ্ট্রের কাজ থেকে গোয়েন্দা প্রতিবেদন পাওয়ার পরও সেটি আমাকে জানাননি। 
 
এসব কর্মকর্তার বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এক সংবাদ সম্মেলনে অপরাধীদের শনাক্ত করার পথে তদন্তের অগ্রগতি হওয়ার কথা জানিয়েছেন শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে। আমরা আইএসের দাবি খতিয়ে দেখবো, আমাদের বিশ্বাস সম্ভবত কিছু সম্পর্ক আছে, বলেছেন তিনি। অন্তত সাত আত্মঘাতী হামলাগুলো চালিয়েছে বলে জানিয়েছে শ্রীলঙ্কা সরকার।
 
এদিকে বুধবার কলম্বোতে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদ‍ূত জানিয়েছেন, ইস্টার সানডের আত্মঘাতী বোমা হামলার বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে আগাম কোনো গোয়েন্দা তথ্য না থাকলেও শ্রীলঙ্কায় আরও সন্ত্রাসী হামলার ষড়যন্ত্র হচ্ছে বলে বিশ্বাস তাদের। 
সুত্র/ভোরের ডাক

Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!